Friday, 31 December 2010

টিপাইমুখ বাঁধের বিরুদ্ধে আসামে বিক্ষোভ



শফিকুল ইসলাম, কলকাতা

মনিপুরের টিপাইমুখ বরাক নদীর ওপর বাঁধ নির্মাণের সরকারি সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে বুধবার আসামের শিলচরে বিশাল মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। নরসিংহটোলা মাঠে সমাবেশের পর বের হয় মিছিল। প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে লেখা এক স্মারকলিপি অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক বিসি নাথের কাছে পেশ করা হয়। জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে স্মারকপত্র পাঠানো হয়েছে কেন্দ্রীয় পরিবেশমন্ত্রী, কেন্দ্রীয় শক্তিমন্ত্রী এবং আসাম ও মনিপুরের মুখ্যমন্ত্রীর কাছে। সমাবেশ ও মিছিল কার্যসূচির আয়োজক কমিটি আন পিপলস অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট (কোপ) এবং সোসাইটি অব অ্যাকটিভিস্টস ফর ফরেস্ট অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট (সেফ)। এই ইস্যুতে একাত্মতা প্রকাশ করে কর্মসূচিতে অংশ নেয় বরাক ভ্যালি ডেমোক্রেটিক স্টুডেন্টস অব ইয়ুথ অর্গানাইজেশন, বরাক ভ্যালি স্টুডেন্টস ফ্রন্ট অল আসাম ট্রাইবাল সংঘ, অল বরাক স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন প্রভৃতি সংগঠনের কর্মকর্তারাও। অংশগ্রহণকারীদের অধিকাংশই ছিলেন মনিপুরী মহিলা।
কোপ সংস্থার সাধারণ সম্পাদক পীযূষ কান্তি দাস এবং সেফ সংস্থার সাধারণ সম্পাদক জিষ্ণু দত্ত সাংবাদিকদের বলেন, রবাক নদীর ওপর টিপাইমুখে ১৮০ মিটার উঁচু বাঁধ নির্মিত হলে তা বৃহত্তর অঞ্চলের পরিবেশে বিরাট প্রভাব ফেলবে। প্রস্তাবিত বাঁধকে তারা ওয়াটার বোম্ব বলে অভিহিত করে।
তারা বলেন, উজানে বাঁধ নির্মাণ করা হচ্ছে এতে ভাটি অঞ্চলের কী ধরনের প্রভাব ফেলতে পারে, সরকার তা একবারও ভেবে দেখেনি। অথচ প্রস্তাবিত বাঁধ বরাক উপত্যকার অর্থনীতিতে বিরাট প্রভাব ফেলবে। জীববৈচিত্র্য চরম বিঘ্নিত হবে। তারা পানি সঙ্কট, শস্য ক্ষেতের ওপর বিরূপ প্রভাব, নৌচালনার সমস্যা, নদী দূষণ ইত্যাদি আশঙ্কার কথাও তুলে ধরেন

No comments:

Post a Comment